মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৯:৪০ অপরাহ্ন

শিরোনাম
বরিশালে মাদক মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার বরগুনায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ বরিশালে ওয়ার্ডের বরাদ্দকৃত সারের ডিলার বিক্রির অভিযোগ, কৃষকের ভোগান্তি ২৬ শর্তে বিএনপিকে সোহরাওয়ার্দীতে গণসমাবেশের অনুমতি: ডিএমপি আগৈলঝাড়ায় প্রশাসনের অভিযানে বিপুল পরিমাণ অবৈধ কারেন্ট ও চায়না দুয়ারী জাল জব্দ আর্জেন্টিনা ব্রাজিল নিয়ে চাঁদপুরে তর্ক গড়ালো খুন পর্যন্ত। বরিশালে লঞ্চ চলাচল শুরু হওয়ায় সাধারন যাত্রীদের মাঝে ফিরেছে স্বস্তি পার্বত্য শান্তিচুক্তির ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে বরিশালে আ’লীগের কর্মসূচি ঘোষণা বরিশালে জমি লিখে না দেওয়ায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা, স্ত্রী গ্রেফতার সারাদেশে হাসপাতালে আরও ৩৬৬ ডেঙ্গুরোগী
চোর সন্দেহে যুবককে তুলে নিয়ে খুঁটির সঙ্গে বেঁধে মারপিট

চোর সন্দেহে যুবককে তুলে নিয়ে খুঁটির সঙ্গে বেঁধে মারপিট

রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় চোর সন্দেহে সেলিম হোসেন নামে এক যুবককে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে বেধড়ক মারপিট করার অভিযোগ উঠেছে।

রোববার সকালে উপজেলার আটঘরি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের শিকার ওই যুবক একই এলাকার বাসিন্দা।

ঘটনাস্থল থেকে মনিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান স্থানীয়দের সহায়তায় সেলিমকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত খোকন উদ্দিন বশিরকে আটক করেছে পুলিশ।

অভিযোগে জানা গেছে, গত শনিবার রাতে উপজেলার আটঘরির চেয়ারম্যানপাড়া গ্রামের আতিয়ার রহমানের ছেলে খোকন উদ্দিন বশিরের বাড়ির রান্নাঘরের জানালা ভেঙে একটি গ্যাসের চুলা ও সিলিন্ডার চুরি হয়।

ওই চুরির ঘটনায় রোববার সকাল ৭টার দিকে সেলিম হোসেনকে প্রতিবেশী খোকন উদ্দিন বশির তার ভাই রাঙ্গা মাস্টার, তহিদুল ইসলাম, ইয়াজুল ইসলাম টুনা আহম্মেদ জোরপূর্বক সেলিমকে তুলে নিয়ে গিয়ে চেয়ারম্যানপাড়া মোড়ে নিয়ে যায়।

সেখানে তারা সেলিমকে বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে রশি দিয়ে বেঁধে এলোপাতাড়ি মারপিট করে চুরির দায় স্বীকার করতে বলা হয়।

খবর পেয়ে সেলিমের আত্মীয়সহ মনিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম, গ্রামপুলিশ আবু বক্কর সিদ্দিক তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। দুপুরে সেলিমের মা হাফিজা বেগম বাদী হয়ে বাঘা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

পুলিশ এ অভিযোগের প্রধান অভিযুক্ত খোকন উদ্দিন বশিরকে বাঘা-আড়ানী সড়কের থানা মোড় থেকে আটক করে।

মনিগ্রাম ইউনিয়ন চেয়ারম্যান অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম বলেন, আমি সেলিমকে বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে বাধা অবস্থায় পাইনি। তবে তাকে মারপিট করার ঘটনা সঠিক।

সেলিম একজন মাদকসেবী। এ কারণে চোর সন্দেহে তাকে মারপিট করা হয়েছে। তবে তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, এ অভিযোগের প্রধান অভিযুক্ত খোকন উদ্দিন বশিরকে আটক করা হয়েছে। অন্য অভিযুক্তদের আটকের চেষ্টা চলছে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




আমাদের ভিজিটর

  • 207,614 জন ভিজিট করেছেন
© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com

Design and Developed By Sarjan Faraby