মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:১০ পূর্বাহ্ন

দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে মুখ খুললেন শাবনূর

দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে মুখ খুললেন শাবনূর

স্বামী অনীক মাহমুদের সঙ্গে ডিভোর্স চেয়ে নোটিশ পাঠিয়েছেন চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী শাবনূর। গত বছরের শেষ দিকে ঢাকায় এসে এই সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

নোটিসে শাবনূর জানিয়েছেন, সব সময় মদ্যপ থাকার কারণে স্ত্রী-সন্তানের প্রতি দায়িত্ব পালন করেন না অনিক। অস্ট্রেলিয়ায় এমন একাকি জীবনে ঠিকমতো শাবনূরের যথাযথ যত্ন ও রক্ষণাবেক্ষণ করে না। একজন মুসলিম স্ত্রীর সঙ্গে স্বামী যে ব্যবহার করেন অনিক সেটা করছেন না।

অনিকের বিরুদ্ধে শাবনূর আরো অভিযোগ এনেছেন, ছেলের জন্মের পর থেকে অনিক দিন দিন আরো দূরে সরে থাকা শূরু করে। পরে তিনি জানতে পারেন অস্ট্রেলিয়ায় অন্য এক নারীর সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে আলাদা বসবাস করছেন অনিক।

এরপরও সব মেনে নিয়ে স্বামীকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করলে উল্টো অমানসিক নির্যাতন সইতে হয়েছে শাবনূরকে।

তিনি বলেছেন, এসব কারণে তারা জীবনে অশান্তি নেমে এসেছে। এক সময় বিরক্ত হয়েই তার কাছ থেকে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন।

সবশেষে তালাকনামায় শাবনূর লিখেছেন, এসব কারণগুলোর জন্য মনে হয়ে তার সঙ্গে আমার আর বসবাস করা সম্ভব নয় এবং আমি কখনো সুখী হতে পারব না। তাই নিজের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ এবং সুন্দর জীবনের জন্য তার সঙ্গে সব সম্পর্ক ছেদ করতে চাই। মুসলিম আইন এবং শরিয়ত মোতাবেক আমি তাকে তালাক দিতে চাই। আজ থেকে সে আমার বৈধ স্বামী নয়, আমিও তার বৈধ স্ত্রী নই।

ডিভোর্সের পর থেকেই নায়িকার দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে সরগরম সোশ্যাল মিডিয়া। অবশেষে দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে মুখ খুললেন শাবনূর।

তিনি বলেন, নতুন (দ্বিতীয়) বিয়ে নিয়ে কোনোই চিন্তা নেই। আসলে আমার সংসার হয়নি। হয়তো এটা আমার ভাগ্যে ছিল না। তাই বলে যে আবার বিয়ে করবো, সেটা সম্ভব না। আর এমনটা ভাবাও এই মুহূর্তে ঠিক হচ্ছে না। আমি এখন আমার সন্তানকে নিয়েই ভাবছি। ওকে গড়ে তোলার কাজে মনোযোগী হবো। এখানে (অস্ট্রেলিয়া) আইজান (শাবনূরের সন্তান) স্কুলে ভর্তি হয়েছে। নিয়মিত ক্লাস করছে।

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালের ২৮ ডিসেম্বর দুই পরিবারের সম্মতিতে বিয়ে করেন শাবনূর ও অনীক মাহমুদ। বিয়ের পরের বছরের ২৯ ডিসেম্বর এই দম্পতি ছেলেসন্তানের মা-বাবা হন। তাদের ছেলের নাম আইজান নেহান। বর্তমানে সে অস্ট্রেলিয়ায় শাবনূরের সঙ্গেই থাকে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com

Design and Developed By Sarjan Faraby