বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৩৬ অপরাহ্ন

‘নারীদেরকেই বিশ্বসুন্দরী সিনেমার প্রথম দর্শক হওয়া উচিত’

‘নারীদেরকেই বিশ্বসুন্দরী সিনেমার প্রথম দর্শক হওয়া উচিত’

দুইবার মুক্তির তারিখ পিছিয়ে অবশেষে মুক্তি পেতে যাচ্ছে সময়ের বহুল আলোচিত সিনেমা ‘বিশ্বসুন্দরী’। শুরু থেকেই ছবিটি ছিল দর্শকদের আগ্রহের কেন্দ্রে। আসছে ২৭ মার্চ সারা দেশে একযোগে মুক্তি পাবে সিয়াম-পরীমনি জুটির এই সিনেমাটি।

গেল কিছুদিন আগে সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে ছবিটি। সাথে কুড়িয়েছে সেন্সর বোর্ডের সদস্যদের প্রশংসাও। যারা ছবিটি দেখেছেন তারাই গল্প, নির্মাণ এবং অভিনয়শিল্পীদের অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন। এমনটাই জানান এ ছবির নায়ক সিয়াম।

তিনি বলেন, ‘সিনেমাটি সেন্সরে দেখার পর বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু ভাই আমাকে যা বললেন সেটা শুনে আমি খুব উৎসাহিত হয়েছি। তিনি বললেন, ‘বিশ্বসুন্দরী’ দেখার আগে আমরা আসলেই ভাবিনি যে সিনেমাটা এত ভালো দাঁড়াবে। শুধু তাই নয়, এরপর যেটা বললেন সেটা শুনে আমি অবাক হয়েছি খুব।

সিনেমাতে তোমার অভিনয় দেখে আমি রীতিমত মুগ্ধ হয়ে গিয়েছি। বিশেষ করে শেষের দিকে তোমার অভিনয় দেখে আমি চোখের পানি আটকে রাখতে পারিনি। এই ছবিটা তোমার ক্যারিয়ারে নতুন একটা মাইলফলক হতে পারে বলে আমি বিশ্বাস করি। এটাও বিশ্বাস করি এই ছবিতে তোমার অভিনয়ের কারণে বাংলাদেশের সিনেমার যত অ্যাওয়ার্ড রয়েছে, সবগুলো তুমি ডিজার্ভ করো। শুধু এটুকুই বলবো, অভিনয়টাকে নিজের মধ্যে ধারণ করো আর সেরাটা দিয়ে যাও। রেজাল্ট আসবেই।

খসরু ভাইয়ের মুখে এমন কথাগুলো শুনে সত্যি সাহস পেলাম। কারণ উনারা মনেপ্রাণে সিনেমার মানুষ। সারাক্ষণ সিনেমা দেখেন এবং সব ধরণের সিনেমাই দেখেন। এত ছবির মধ্যে আমার ছবিটা যদি তাদের অন্তরকে স্পর্শ করে সেটা আসলেই আমার জন্য একটা বড় পাওয়া।’

ছবিটি নিয়ে সিয়াম আরও বলেন, ‘আমাদের প্রত্যেকের ঘরেই কিন্তু মা, খালা, কাকী, ফুপ্পি বা ভালোবাসার মানুষ আছেন। তাদেরকে নিয়ে দেখার মত একটা সিনেমা বিশ্বসুন্দরী। আর আমি প্রথমত বলবো, এই সিনেমার প্রথম দর্শক হওয়া উচিত নারীদের। প্রত্যেকেটা ছেলে কিংবা পুরুষের জীবনেই কোনো না কোনো মেয়ে বা নারী গুরুত্বপূর্ণ। পুরুষদের উচিত সেই প্রিয় নারীকে নিয়ে এই সিনেমাটা দেখা। কেন এটা বলছি সেটা হলে গিয়ে সিনেমাটা দেখার পর সবাই বুঝতে পারবে। পারিবারিক একটা ছবি, পরিবারের সবাইকে নিয়ে দেখার মত ছবি এটা।’

ছবিটি কি তাহলে নারীকেন্দ্রিক- এমন প্রশ্নে সিয়ামের উত্তর, ‘আসলে কোনো গল্পই তো নারীকে বাদ দিয়ে সম্ভব না। নারীরা যদি পুরুষদের জীবনের কেন্দ্রে থাকে, তাহলে ছবিও তো নারীকেন্দ্রিকই হবে। আর ছবিটা নারীকেন্দ্রিক কিনা সেটা দেখার পরই সবাই বুঝবে।’

এই ছবিতে কাজের অভিজ্ঞতা জানাতে গিয়ে এই নায়ক বলেন, ‘সার্বিক দিক থেকে অনেক সীমাবদ্ধতা থাকার পরও আমাদেরকে কাজ করে যেতে হয়। সবকিছু মেনে চেষ্টা করেছি কাজ করতে। কাজটা করতে গিয়ে অনেক কিছু ত্যাগও করেছি। সবকিছু তখনই স্বার্থক হবে যখন দর্শকরা দেখার পর ভালো বলবে। দিনশেষে আমরা দর্শকদের জন্যই সিনেমা করি।’

সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স প্রযোজিত এ সিনেমার গল্প ও চিত্রনাট্য লিখেছেন রুম্মান রশীদ খান। আর সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন চয়নিকা চৌধুরী। সিয়াম-পরীমনি ছাড়াও ছবিতে আরো অভিনয় করেছেন আলমগীর, চম্পা, অরুণা বিশ্বাস, ফজলুর রহমান বাবু, খালেদ হোসেন সুজন, হীরা, আনন্দ খালেদ, মনিরা মিঠু প্রমুখ।

সম্প্রতি খুলনা থেকে ‘অপারেশন সুন্দরবন’ সিনেমার শুটিং করে ফিরেছেন সিয়াম। ফিরেই অংশ নিয়েছেন একটি প্রমোশনাল ফটোশুটে। আগামী ১৪ মার্চ থেকে অংশ নেবেন তার নতুন সিনেমা ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ সিনেমায়। আবু রায়হান জুয়েলের পরিচালনায় এই ছবিতে তার সঙ্গে জুটি বাঁধছেন পরীমনি।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com

Design and Developed By Sarjan Faraby