বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৫৪ অপরাহ্ন

নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে বরিশালে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীদের সংবাদ সম্মেলন

নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে বরিশালে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীদের সংবাদ সম্মেলন

বরিশাল জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীরা। শনিবার জেলা আইনজীবী সমিতির মূল ভবনে সংবাদ সম্মেলনে ১৩ ফেব্রুয়ারি নির্বাচনের ফলাফলকে প্রত্যাখ্যান করাসহ ফলাফল বাতিল করে পুনঃনির্বাচনের দাবী জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সভাপতি প্রার্থী মজিবর রহমান নান্টু বলেন, আইনজীবী সমিতিতে মোট ভোটারের সংখ্যা ৮৬৬ জন। নির্বাচন শেষে নির্বাচন কমিশন ঘোষণা করেন ৭৬০ ভোট কাস্ট হয়েছে। অথচ ফলাফল ঘোষণার সময় দেখা যায় অনিয়মের কারণে বাতিল হওয়া ৪টি ব্যলটসহ মোট ভোটের সংখ্যা ৭৬৯। যা কাস্টিং হওয়া ভোটের থেকে বেশি। বিজয়ীদের দল ক্ষমতায় থাকায় রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে তারা নির্বাচন উপ-পরিষদকে প্রভাবিত করে ভোটারদের দেয়া রায় পাল্টে খালি ব্যালটে নিজেরা ভোট দিয়ে বাক্স পূর্ন করে। যার কারণে তারা হিসেব মিলাতে ব্যর্থ হয়ে কাস্ট হওয়া ভোট থেকে বেশি ভোট দিয়ে বাক্স পূর্ন করে।

অভিযোগ করে তারা আরও বলেন, গঠনতন্ত্র ও তফসিলে বর্ণিত নিয়ম ভঙ্গ করে আদালত প্রাঙ্গনে ও আইনজীবী সমিতির ভবনে তাদের ব্যানার প্রদর্শন করে। একই সাথে ভোটের দিন হাজার হাজার প্যানেল সীট বিতরণ ও একাধিকবার আদালত চত্বরে দলের সমর্থনে মিছিল করে। মধ্যাহ্নভোজের বিরতি দুপুর ১টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত নির্ধারিত থাকা সত্বেও বিরতি ২টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত দিয়ে ব্যালট বদল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে।

সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সভাপতি মহসিন মন্টু, সাধারন সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ-১, হাফিজ মো. বাবলু, সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক নাজিম উদ্দিন পান্না, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোখলেছুর রহমান বাচ্চু ও আবুল কালাম আজাদ ইমনসহ নির্বাচনে অংশগ্রহন করা প্রার্থীরা।

এ ব্যাপারে জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সহকারি নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালনকারী আইনজীবী উজ্জল কুমার রায় বলেন, সাংবাদিক সম্মেলনে বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা যে অভিযোগ করেছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। নির্বাচনে কোন প্রকার কারচুপি হয়নি। ভোট গণনার শেষ সময় পর্যন্ত তারা উপস্থিত থেকে ফলাফল মেনে নিয়ে ওই স্থান ত্যাগ করেন।

চারটি ভোট বেশী হওয়া বিষয়ে তিনি বলেন, ভোট গণনায় ভুল হতেই পারে। আমরা তা সংশোধন করে দেবো।

প্রসঙ্গত, জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে ১১টি পদের মধ্যে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ১০টি পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্যানেল জয়লাভ করেন। শুধুমাত্র একটি মাত্র সদস্য পদে জয়লাভ করে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com

Design and Developed By Sarjan Faraby