মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৪৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম
সিএ রাজিবের অপসারনের দাবীতে মানববন্ধন-প্রতিবাদ সমাবেশ উজিরপুর মডেল থানার এসআই মেহেদী বরিশাল জেলার শ্রেষ্ঠ বিট অফিসার নির্বাচিত বরিশালে মুক্তিযোদ্ধার রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন মুক্তিযোদ্ধার কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগে ১ জনকে জেলহাজতে প্রেরন বরিশালের সাংবাদিকদের সহযোগিতা চাইলেন নবাগত জেলা প্রশাসক ভাণ্ডারিয়ায় বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা ঝালকাঠির নবাগত জেলা প্রশাসককে প্রেসক্লাবের শুভেচ্ছা বানারীপাড়ার ছাত্রীকে ধর্ষণ, কোচিং সেন্টারের পরিচালক ও শিক্ষক গ্রেফতার ব‌রিশালে ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ফার্মেসিকে জ‌রিমানা বরিশালের বাবুগঞ্জে ডাকাত আতঙ্কে মসজিদে মসজিদে মাইকিং
বিয়েবাড়িতে লাঠিসোটা নিয়ে মারামারি, বরসহ আহত ২০

বিয়েবাড়িতে লাঠিসোটা নিয়ে মারামারি, বরসহ আহত ২০

বিয়েবাড়িতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বর ও কনে পক্ষের মধ্যে তুমুল মারামারিতে দুই পক্ষের কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে বরসহ চারজনের অবস্থা গুরুতর। শুক্রবার এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার পাথরঘাটসদর ইউনিয়নের রুহিতা গ্রামের বাসিন্দা মোফাজ্জেল হোসেনের বড় মেয়ে বরগুনা সরকারি কলেজের অনার্স পড়ুয়া ছাত্রীর বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। তার বিয়ে হয় বাগেরহাট জেলার মোংলা উপজেলার হালিম মুন্সির পুত্র রাজমিস্ত্রী মো. বেলালের সঙ্গে।

শুক্রবার দুপুরে ২ লাখ টাকা দেনমোহরে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। বিয়ে ও খাওয়া দাওয়ার পর বউকে নিয়ে বাড়ির উদ্দেশে রওয়ানা দেয়ার প্রস্তুতি শুরু করে বরপক্ষ। কিন্তু কনেকে সাজিয়ে গুজিয়ে বরের হাতে তুলে খানিকটা বিলম্ব করে কনেপক্ষ। এ নিয়ে দু পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডা ও পরে হাতাহাতি হয়। একপর্যায়ে লাঠি-সোটা নিয়ে পরস্পরের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন দুই পক্ষের লোকজন।

এতে সবমিলিয়ে ২০ জন আহন হন। আহতদের মধ্যে বর মো. বেলাল (২৭), বরের বোন সাজেদা (১৬), বরের ভগ্নিপতি মো.আকতার হোসেন ও বরযাত্রী মো. মানিকের অবস্থা গুরুতর। তাদের প্রথমে পাথরঘাটা উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরে তাদের বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

প্রতক্ষদর্শী পাথরঘাটা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মতিউর রহমান মোল্লা জানান, এমনিতেই বিয়েটি অসম পর্যায়ে হচ্ছিল। অনার্সে পড়া একটা মেয়ের বিয়ে হয়েছে একজন রাজমিস্ত্রী দিন মজুরের সঙ্গে।

এ নিয়ে কনে জানান, তিনি বরগুনা সরকারি কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষ সম্মানের ছাত্রী। বরের শিক্ষা বা পেশা সম্পর্কে তিনি কিছুই জানতেন না।

পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শাহাবউদ্দিন জানান, এ ঘটনায় কনে ও তার অভিভাবকদের জিজ্ঞেসাবাদ করা হয়েছে। তবে এ নিয়ে এখনও কোনও অভিযোগ দায়ের করেনি বর বা কনে পক্ষের কেউই।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




আমাদের ভিজিটর

  • 207,666 জন ভিজিট করেছেন
© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com

Design and Developed By Sarjan Faraby