মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:০৩ পূর্বাহ্ন

ভারতে ৮০ শহর লকডাউন

করোনা ঠেকাতে ‘জনতা কারফিউয়ের’ দিনেই গতকাল রোববার (২২ মার্চ) ভারতে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন তিনজন। এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ জনে।

যার ফলে কলকাতা, মুম্বাই, চেন্নাই, দিল্লিসহ ভারতের ৮০ টি শহরে ৩১ মার্চ পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা করেছে দেশটির সরকার। এদিকে রোববার ভারতজুড়ে ‘জনতার কারফিউ’ পালিত হয়েছে। সকাল ৭টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত এ কারফিউ চলে। এ সময় সারা দেশে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। বন্ধ থাকে দূরপাল্লার ট্রেনও।

জনতার কারফিউকে কেন্দ্র করে গতকাল ভারতের বিভিন্ন অঞ্চল ছিল কার্যত জনমানবহীন। পশ্চিবঙ্গের ধর্মতলা, পার্ক স্ট্রিটে সকালের দিকে কিছু লোকজন দেখা গেলেও পরে মানুষের চিহ্ন দেখা যায়নি। রাজপথগুলো ছিল সুনসান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সকাল থেকে গোটা কলকাতা শহরে বেসরকারি বাস দেখা যায়নি। ধর্মতলার মোড়ে সকালের দিকে সরকারি বাস টার্মিনাসে কিছু মানুষের ভিড় করেন। তারা জরুরি কাজে কোথাও যাওয়ার জন্য এসেছিলেন। একমাত্র তাদের জন্যই গুটিকয়েক দূরপাল্লার সরকারি বাস এদিন চলেছে। এছাড়া সকাল থেকে ধর্মতলা, ময়দান, চাঁদনী চক, পার্ক স্ট্রিটে কোনো চা-এর দোকানও খোলা পাওয়া যায়নি। মানুষ থেকেছেন ঘরবন্দী। অনেকেই বলেছেন, বড় মাপের বন্ধও এই বাস্তবতায় হার মেনেছে।

এদিকে একদিনের জনতা কারফিউ শেষ হওয়ার পর ৮০টি শহর লক ডাউন করেছেন সরকার। মধ্যরাত থেকে শুরু হওয়া এ লকডাউন চলবে ৩১ মার্চ পর্যন্ত। এ কর্মসূচিকে সামনে রেখে গতকাল এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে রেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশ জুড়ে সব যাত্রীবাহী ট্রেন পুরোপুরি বন্ধ থাকবে। বন্ধ থাকবে কলকাতার মেট্রো পরিষেবাও।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওয়াইএ

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com

Design and Developed By Sarjan Faraby