বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:০৮ অপরাহ্ন

মেয়েদের উপরেই আঙুল কেন, ছেলেরা করে না?

মেয়েদের উপরেই আঙুল কেন, ছেলেরা করে না?

জিম, ডায়েট কিংবা ওয়ার্কআউট-ই নয় নিজেকে সুন্দর দেখাতে বলিউড তারকারা ভরসা রেখেছেন কৃত্রিম উপায়ে। কখনও ‘নোজ জব’ আবার কখনও ঠোঁটের ভোল একেবারে পাল্টে দিতে ‘লিপ জব’ চাহিদার যেন কোনও শেষ নেই। সব সময় যে, সকল অভিনেত্রীর অস্ত্রোপাচার সফল হয়েছে এমনটাও কিন্তু নয়। ঝুঁকি নিয়ে নির্দিষ্ট কোনও অঙ্গের ভোল বদলাতে গিয়ে পাল্টে গেছে ফেলেছেন পুরো চেহারাটাই! কখনও বা হাসির খোরাক হতে হয়েছে অনেক অভিনেত্রীকেই।

বলিউডের অভিনেত্রীদের মধ্যে প্রথম লিপ জব করানোর সাহস দেখিয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। তাই মিস ওয়ার্ল্ড জয়ী প্রিয়াঙ্কা আর এখনকার প্রিয়াঙ্কার চেহারার মধ্যে ফারাক চোখে পড়ার মতো। তবে মিডিয়ার সন্মুখে কখনই সে কথা স্বীকার করেনি তিনি। শিল্পা শেঠিও রয়েছেন এই তালিকায়। এক বার নয় দু’বার ‘নোজ জব’ করিয়েছেন তিনি। তবে কোনও লুকোচুরি নয় প্রকাশ্যে শিল্পা স্বীকার করে নিয়েছেন তাঁর প্লাস্টিক সার্জারির কথা।

কাজল দেবগণ তাঁর ‘ডাস্কি’ লুক নিয়ে়ই বলিউডে রাজত্ব করে এসেছেন চিরকাল। কিন্তু হঠাত্ করে ‘দিলওয়ালে’ ছবির শুটিংয়ের আগে নিজের গায়ের রং বদলে ফেলে নেটাগরিকদের সমালোচনার মুখে পরতে হয়েছিল তাঁকে। অনুষ্কা শর্মাও নাকি ‘পিকে’ ছবিতে তাঁর পারফেক্ট লুক আনতে করিয়েছিলেন ‘লিপ জব’।

এই লিস্ট আদতে বড়ই লম্বা। কঙ্গনা রানাউত, ক্যাটরিনা কাইফ, মৌনী রায় আরও অনেক বলিসুন্দরীই প্লাস্টিক সার্জারির পথে হেঁটেছেন। শুধু এরাই নন একাধিক বার প্লাস্টিক সার্জারি করিয়েছিলেন শ্রীদেবী। আর সেই জন্যেই নাকি তাঁর এই অকাল প্রয়াণ বলিউডে এমন ধারনা অনেকেরই।

কেউ বলে প্রকাশ্যে কেউ বা করেন লুকিয়ে চুরিয়ে। কেবল অভিনেত্রীরাই নন যৌবন ধরে রাখতে, ত্বকে গ্লো আনতে অনেক অভিনেতারাও কসমেটিক সার্জারি করান। আমির খান থেকে শাহরুখ খান তালিকায় রয়েছেন অনেকেই। তবে নেটাগরিকদের টার্গেট কেবল মহিলারাই! কেন?

সম্প্রতি কারিনা কাপুরের এক রেডিও শো-তে অতিথি হয়ে এসেছিলেন রাবিনা টেন্ডন। কারিনা তাঁকে প্রশ্ন ছুড়েন, বলিউডে মহিলা শিল্পীদের উপর যৌবন ধরে রাখার এত প্রেসার কেন? উত্তরে রাবিনার জবাব, ‘আমি মনে করি বাইরের সৌন্দর্যটা সম্পূর্ণই নির্ভর করে আপনার অন্তরটা কতটা যৌবন, কতটা সতেজ তার উপর।’

তিনি আরও বলেন, ‘ অভিনেত্রীদের প্লাস্টিক সার্জারি নিয়ে এত প্রেসার দেওয়া কেন? মিডিয়া ধরেই নেয় যে কোনও অভিনেত্রী হঠাত্ সুন্দরী হয়ে উঠলেন তার মানেই তিনি সার্জারি করিয়েছেন নিদেনপক্ষে বোটক্স। অভিনেতারাও তো এমনটা করিয়ে থাকেন, তবে কেন সব সময় শুধু মেয়েদের উপরেই আঙুল ওঠে? এটাও এক ধরনের বৈষম্য।’

তিনি মজার ছলে প্রশ্ন তুলেছেন অভিনেতারা পর্দায় গ্ল্যামারেস লুক ধরে রাখতে কি কোনও ম্যাজিক ড্রিঙ্ক খান? যার খোঁজ আমরা রাখি না? কারিনা তাঁকে প্রশ্ন করলেন তাঁর সম বয়েসের অভিনেতারা আজও লিড রোলে কাজ করে যাচ্ছেন, প্রশংসাও কুড়াচ্ছেন ভক্তদের…তাহলে সেই বয়সের অভিনেত্রীরা কোণঠাসা কেন? তাদের বেলায় এমনটা নয় কেন? রাবিনার জবাব, ‘বলিউডের ট্রেন্ড এখন বদলাচ্ছে। আমির, সালমান,অনিল এরা সকলেই এখন নিজের বয়সের কাছকাছি চরিত্রগুলিতেও সমান দক্ষতায় কাজ করে চলেছেন।’

রাবিনা এখন ঠাকুমাও বটে। তবে বয়স নিয়ে বিন্দুমাত্র চিন্তিত নন তিনি। কন্নড় ছবি ‘কেজিএফ: চ্যাপ্টার টু’ শুটিং নিয়ে এখন ব্যস্ত রবিনা।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com

Design and Developed By Sarjan Faraby