শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০৭ অপরাহ্ন

রক্তমাখা ব্যবহৃত মাস্ক ধুয়ে ও ইস্ত্রি করে পুনরায় বিক্রি

রক্তমাখা ব্যবহৃত মাস্ক ধুয়ে ও ইস্ত্রি করে পুনরায় বিক্রি

গাজীপুরের টঙ্গীতে করোনা আতঙ্ককে কাজে লাগিয়ে হাসপাতালের ব্যবহৃত মাস্ক ও হ্যান্ডগ্লাভস শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে আবার বিক্রির সময় দু’জনকে পুলিশ আটক করেছে। তবে নাছির (৩৫) নামের মূলহোতা পালিয়ে গেছেন।

বুধবার দুপুরে গাজীপুরের টঙ্গী থেকে এ দুজনকে আটক করা হয়।

পুলিশ জানায়, গাজীপুরের টঙ্গীর চম্পাকলি সিনেমা হলের পেছনের একটি বাড়িতে হাসপাতালের ব্যবহৃত রক্তমাখা মাস্ক ও হ্যান্ড গ্লাভস ধুয়ে বাজারে দ্বিগুন দামে বিক্রি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে নাসির নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। রাজধানীর উত্তরা, টঙ্গী ও গাজীপুরের বিভিন্ন হাসপাতালের ব্যবহার করে ফেলে দেয়া মাস্ক ও হ্যান্ড গ্লাভস শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে আয়রন করে বাজারে বিক্রি করছেন নাসির। স্থানীয় একটি দোকানে এসব মাস্ক আয়রন করতে দেখে স্থানীয় সাংবাদিকদের ও টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে বিপুল পরিমাণ মাস্ক ও হ্যান্ড গ্লাভস উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় দু’জনকে আটক করা হয়। তবে মূলহোতা নাসিরকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

সূত্র জানায়, এক মাস ধরে এই ব্যবসা করছেন নাসির। করোনাভাইরাস আতঙ্কের সুযোগ কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে ব্যবহার করা মাস্ক ও হ্যান্ড গ্লাভস সংগ্রহ করে ধুয়ে বাজারে চড়া দামে বিক্রি করছেন তিনি।

স্থানীয় কাশেম সিকদার বলেন, গত এক মাস ধরে হঠাৎ মাস্ক ও হ্যান্ড গ্লাভস সংকট দেখা দিলে জানতে পারি নাছির নামের এক ব্যক্তি এ ব্যবসা করে আসছে। হঠাৎ এ কালোবাজারি করে প্রচুর টাকার মালিক হয়ে গেছে নাছির।

টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) জাহিদুল ইসলাম বলেন, স্থানীয়দের খবরের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে এসে দুজনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত মূল হোতা নাসিরকে আটক করতে অভিযান চলছে।

টঙ্গী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শুভ মন্ডল জানান, এমন ব্যবসা দেখে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বিপুল পরিমাণ রক্তমাখা মাস্ক ও হ্যান্ডগ্লাভস উদ্ধার করেছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকায় পুলিশ বাড়ির ম্যানেজার ও আয়রনম্যানসহ দুজনকে আটক করেছে। তবে মূলহোতা নাছির ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেছে। তাকে আটক করতে পুলিশের অভিযান চলছে।

টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি (অপারেশন) সুব্রত জানান, এ নিয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com

Design and Developed By Sarjan Faraby