শুক্রবার, ১০ Jul ২০২০, ০৯:০৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মুলাদীতে বসতবাড়িতে ‘হামলা-ভাংচুর-লুট, কুপিয়ে ও টেঁটাবিদ্ধ’ করে জখম ১১ জন মেরিন ড্রাইভ সড়কে ৯০ পিচ হাজার ইয়াবা ট্যাবলেট সহ আটক ১ বড় কর্তা ঘুষ চাইলে আমাকে জানাবেন, আইজিপি বেনজীর আহমেদ করোনা কালে রেস্তোরাঁয় এলো ‘মাস্ক পরোটা’ নেট দুনিয়ায় তোলপাড় সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদ বরিশাল মহানগর স্বেচ্ছাসেবকদের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে প্রেরিত ক্রেস্ট প্রধান ও আলোচনা অনুষ্ঠান বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের ২১৮ জন সদস্য করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত, সুস্থ ৮৫ জন করোনা মোকাবিলায় ‘সাহস রাখতে হবে ও স্বাস্থ্যবিধি’ মানতে হবে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্রেডিট কার্ড জালিয়াত চক্রের ৪ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছেন সিআইডির সাইবার পুলিশ আমরাই চোর ধরি, আমাদেরকেই দোষারোপ করা হয় : সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাদারীপুরে এক নববধূকে ‘ধর্ষণের অভিযোগ’ ৩ যুবক গ্রেপ্তার এক গৃহবধূকে ধর্ষণ করে ‘ভিডিও ধারণ’ যুবক আটক খুলনায় আজ থেকে খুলছে দোকান-পাট -মার্কেট-শপিংমল বাংলাদেশের করোনার সার্টিফিকেট নিয়ে ‘জালিয়াতির খবর’ ইতালির পত্রিকায় বরিশালে পুলিশ সদস্যদের বাবার মতো আগলে রেখেছেন পুলিশ কমিশনার, মোঃ শাহাবুদ্দিন খান নিখোঁজের ১৮ ঘন্টা পর মাদ্রাসা ছাত্রী আয়শার লাশ উদ্ধার, ৪ জন গ্রেফতার বাতাসে করোনা ভাইরাস ছড়ানোর প্রমাণ পেয়েছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা রিজেন্টে হাসপাতালে চেয়ারম্যান সাহেদের ‘ব্যাংক হিসাব’ তলব বনারীপাড়ায় শেখ হাসিনা সেনানিবাসের উদ্যোগে গর্ভবতী মায়েদের ‘বিনামূল্যে চিকিৎসা’ প্রদান বরিশালে নতুন করে ১১৪ জন করোনায় আক্রান্ত, মোট ৩৬৫১ জন দানবের বাম্পার ফলন হয় কেন? আরিফ আহমেদ মুন্না !
৭ মার্চের ভাষণ জাতির রক্তে আগুন জ্বেলেছিল

৭ মার্চের ভাষণ জাতির রক্তে আগুন জ্বেলেছিল

৪৯ বছর আগের এক মধ্য দুপুর। লাখো মানুষের সরব উপস্থিতিতে মঞ্চে আসেন মহানায়ক। শুরু নতুন এক ইতিহাসের পথ চলা। বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের সেই ঐতিহাসিক ভাষণেই রচিত হয়, বাঙালির চিরায়ত স্বপ্ন স্বাধীন বাংলাদেশের ভিত্তি। পাকিস্তানী হানাদারদের পরিকল্পিত হত্যাযজ্ঞ চালানোর প্রক্রিয়াকে বিভ্রান্তিতে ফেলে, বঙ্গবন্ধু বাঙালিকে রণপ্রস্তুতির উপলক্ষ্য এনে দেন তার সেই অমর কবিতায়।

১৯৭১ সালের ৭ মার্চের সকালটি ছিলো আর দশটা সকাল থেকে আলাদা। লাঠি আর পতাকা হাতে লাখো মানুষের পথ গিয়ে মেলে রেসকোর্স ময়দানে।

বিকেল ৩ টা ২০। জনতার অপেক্ষার প্রহর ফুরোয়, মঞ্চে ওঠেন কোটি বাঙালির প্রাণপুরুষ। পরের ১৯ মিনিটে রচিত হয় এমন এক মহাকাব্য, যার ছন্দে ছন্দে স্বাধিকারের মন্ত্র, উদ্দীপ্ত করে মুক্তিকামী কোটি বাঙালিকে।

এ দিন লাখ লাখ মুক্তিকামী মানুষের উপস্থিতিতে এই মহান নেতা বজ্রকণ্ঠে ঘোষণা করেন, ‘রক্ত যখন দিয়েছি রক্ত আরও দেব, এ দেশের মানুষকে মুক্ত করে ছাড়ব ইনশা আল্লাহ। এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।’

জনতাকে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে নির্দেশ দিয়ে তিনি বলেছিলেন, ‘প্রত্যেক ঘরে ঘরে দুর্গ গড়ে তোলো। তোমাদের যা কিছু আছে, তাই নিয়ে শত্রুর মোকাবিলা করতে হবে।’

প্রকৃতপক্ষে জাতির উদ্দেশে দেওয়া বঙ্গবন্ধুর ওই ভাষণই ছিল বাংলাদেশের স্বাধীনতার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। এরপরই মুক্তিকামী মানুষ ঘরে ঘরে চূড়ান্ত লড়াইয়ের প্রস্তুতি নিতে শুরু করে। বঙ্গবন্ধুর সেদিনের স্বাধীনতার ডাকে জেগে উঠেছিল ২৩ বছরের শোষণ আর নিপীড়নে পিষ্ট এ দেশের মুক্তিপাগল জনতা। পেয়েছিল স্বাধীনতা যুদ্ধের দিক—নির্দেশনা।

বঙ্গবন্ধুর স্নেহধন্য ও বর্তমানের আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধু তার চশমাটা সেদিন ডায়াসের ওপর রেখে ১৮ মিনিটের যে ভাষণ দিয়েছিলেন, তার পুরোটাই অলিখিত। একদিকে তিনি পাকিস্তানিদের প্রতি চার দফা শর্ত আরোপ করলেন, অন্যদিকে ঘরে ঘরে দূর্গ গড়ে তুলতে বললেন।

তিনি বলেন, ‘৭ মার্চের আগে বঙ্গবন্ধুর বাড়ি গিয়েছিলাম। একজন তাকে বললেন, জনগণ কিন্তু সম্পূর্ণ স্বাধীনতা ঘোষণা ছাড়া মানবে না। বঙ্গবন্ধু বললেন, তুমি তোমার কাজ কর। আমি তাদের নেতা, আমি তাদের পরিচালিত করবো, তারা আমাকে নয়।’

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের শ্রেষ্ঠত্বের কথা তুলে ধরে ইতিহাসের অধ্যাপক মেসবাহ কামাল বলেন, বঙ্গবন্ধুর এ ভাষণের পর গোটা বাংলাদেশে পাকিস্তানিদের পরিবর্তে বাঙালিদের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠিত হয়। অনেকে বিভিন্ন জায়গায় পূর্ব পাকিস্তান শব্দ মুছে বাংলাদেশ লেখে।

তিনি বলেন, এ ভাষণের পর গোটা দেশ বঙ্গবন্ধুর নির্দেশনায় চলতে থাকে। এ ভাষণ গুটি কয়েক রাজাকার ছাড়া গোটা বাংলাদেশকে ঐক্যবদ্ধ করেছিল।

বাংলার ইতিহাসে আর কোনো রাজনৈতিক নেতার ভাষণের শব্দমালা এমনভাবে হৃদয় মনে গেঁথে নেই, যতটা জায়গাজুড়ে আছে ৭ মার্চের ভাষণ।

এদিকে দিবসটি উপলক্ষে আজ বিকেল ৩টা ৩০মিনিটে বঙ্গবন্ধু আর্ন্তজাতিক সন্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে আলোচনা সভা। এতে সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগের সকল শাখা কমিটি কেন্দ্রীয় কর্মসূচির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ কর্মসূচি গ্রহণ করে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ স্মরণ করবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com
Design By Rana