শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:৪৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বরিশালসহ দেশের ১৯টি অঞ্চলে ঝড়ের পূর্বাভাস, ঐসব নদীবন্দরকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত ভারতে করোনা আক্রান্ত ৫২ লাখ ছাড়ালো বেকারত্বের অভিশাপ দুর করতে কাজ করছেন ‘জাকের পার্টি’ ফয়েজ-উল-বারী আবারও বাড়ল সোনার দাম ভরি প্রতি ২৪৪৯ টাকা নির্ভেজাল ও কাঙ্ক্ষিত সেবা দিয়ে জনগণের কাছাকাছি পৌঁছে যাওয়াই ‘বিট পুলিশিং’ বিএমপি কমিশনার, মোঃ শাহাবুদ্দিন খান ‘স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় যথেষ্ট দক্ষতার পরিচয় দিয়েছে বলেই করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরিশালে প্ল্যান বহির্ভুত ভবন নির্মাণ ‘৪ ব্যক্তিকে’ ৬৪ লাখ ৯৭ হাজার ২৮০ টাকা জরিমানা দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আরও ৩৬ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৯৩ জন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার খনি দুর্নীতি মামলা, শুনানি আগামী ১৭ নভেম্বর বরিশাল অঞ্চলের ২৫ জন সহ এমপিওভুক্ত হচ্ছেন ২ হাজারের বেশি শিক্ষক-কর্মচারী বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ২ কোটি ৯৭ লাখ ছাড়িয়েছে, মৃতের সংখ্যা ৯ লাখের ও বেশি মানুষ বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সাদেক আব্দুল্লাহ’র সাথে, সম্পাদক পরিষদের শুভেচ্ছা বিনিময় ‘ছাত্র অধিকার পরিষদ’ বরিশাল সরকারী বিএম কলেজ শাখার কমিটি অনুমোদন ঝালকাঠির রাজাপুরে নির্মাণাধীন ছাদ থেকে পড়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু বরিশাল জেলার ৮১টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের মাঝে আর্থিক অনুদানের ১৬ লাখ ২০ হাজার টাকার চেক বিতরণ আজ  দুপুর ১টার দিকে বিএম কলেজে মুখোশধারীদের হামলা, লন্ডভন্ড সমাজকল্যান বিভাগ দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় প্রাণ গেল আরও ২১ জনের, নতুন শনাক্ত ১৬১৫ জন করোনা : সরকারি চাকরিতে বয়সে ছাড় দিচ্ছে সরকার বরিশালে পারাবত-১১ লঞ্চের ৩৯১ নম্বর কেবিনে নারী ধর্ষণের পরে খুন, অবেশেষে খুনি আটক বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ২ কোটি ৯৪ লাখ মানুষ , মৃত্যু ৯ লাখ ৩৩ হাজার ২২৮ জন
বরিশালে শিক্ষককে কান ধরে ওঠ-বস করাল ছাত্র, ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল

বরিশালে শিক্ষককে কান ধরে ওঠ-বস করাল ছাত্র, ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল

বরিশাল নগরীর একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সাবেক এক শিক্ষককে কান ধরে ওঠ-বস করানোর ঘটনা ঘটেছে। এরই মধ্যে কান ধরে ওঠ-বস করানোর ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, জমজম ইনস্টিটিউট নগরীর রূপাতলী শাখার সাবেক শিক্ষক মিজানুর রহমান সজলকে কান ধরে-ওঠ-বস করানো হচ্ছে। ভিডিওতে অন্য কাউকে দেখা না গেলেও কয়েকজনের কণ্ঠস্বর শোনা যায়। কোনো ছাত্রীকে বেশি নম্বর দেয়ার প্রলোভনে অনৈতিক প্রস্তাব কখনও দেবেন না বলে মিজানুর রহমান সজলকে শপথ করিয়েছিলেন ঐ ব্যক্তিরা ।

সম্প্রতি ফেসবুকে ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। এরপর ভিডিওটি ভাইরাল হয়। ভিডিওটি বহু মানুষ শেয়ার করেছেন। তবে ভিডিওটি কে করেছেন বা কে প্রথম ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন তা এখন পর্যন্ত ও জানা যায়নি।

মিজানুর রহমান সজলের বাড়ি পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কনকদিয়া ইউনিয়নের আয়লা গ্রামে।

এ বিষয়ে শিক্ষক মিজানুর রহমান সজল বলেন, ২০১৫ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত জমজম ইনস্টিটিউটের নগরীর রূপাতলী শাখায় শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলাম। মেডিকেল টেকনোলজি কোর্সসহ স্বাস্থ্যসেবার সঙ্গে সম্পর্কিত নানা কোর্স ইনস্টিটিউটে পড়ানো হয়। আমি ম্যাটস বিভাগের শিক্ষক ছিলাম। ২০১৮ সালে ওই প্রতিষ্ঠান থেকে চাকরি ছেড়ে দেই। তবে করোনাকালে মার্চ মাসে খণ্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে অনলাইনে ৮-১০ ক্লাস নিয়েছিলাম।

শিক্ষক সজল বলেন, ওই প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকতা করার সময় কয়েকজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে বিরোধ দেখা দেয়। এর মধ্যে ইমন ও তার স্ত্রী মনিরা ছিল। তারা ক্লাস ফাঁকি ও লেখাপড়ায় অমনোযোগী ছিল। তাদের লেখাপড়ায় মনোযোগ দিতে বলা হয়। কিন্তু তারা কর্ণপাত না করে উল্টো পরীক্ষায় ভালো নম্বর পাইয়ে দিতে নানা সময় তাদের বহিরাগত বন্ধুদের দিয়ে চাপ দিয়ে আসছিল। পাশাপাশি ইমন আমাকে কখনও সালাম দিতো না। এ নিয়ে ইনস্টিটিউটের কয়েকজন ছাত্র ইমনকে ভর্ৎসনা করেছিল। তবে সালাম না দেয়া নিয়ে আমার মাথাব্যথা ছিল না। তারপরও ইমন আমার ওপর ক্ষিপ্ত ছিল। এসব কারণে ২৬ আগস্ট হাতেম আলী কলেজ সংলগ্ন এলাকায় ইমন ও তার ৬/৭ জন বন্ধু আমার পথরোধ করে। এরপর তারা আমার মুঠোফোন ও মোটরসাকেলের চাবি নিয়ে যায়। সেখান থেকে আমাকে তারা জোর করে অক্সফোর্ড মিশন রোড এলাকায় নিয়ে যায়। এরপর আমাকে সেখান থেকে গোরস্থান রোডে নিয়ে মারধর করে তারা। এ সময় ইমনের সঙ্গে ৬/৭ জন যুবক ছিল। একজনের হাতে লাঠি ছিল। তাদের কিল-ঘুষিতে আমার নাক ফেটে যায়। তাদের ভয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলাম। কি করব বা তাদের হাত থেকে কিভাবে রক্ষা পাব কিছুই মাথায় আসছিল না তখন।

মারধরের একপর্যায়ে ইমন আমাকে কান ধরে ওঠ-বস করায়। এরপর ইমন আমাকে কিছু কথা বলতে বাধ্য করে। সেগুলো একজন মুঠোফোনে ধারণ করে। তারা যেভাবে যা বলতে বলেছে, আমিও তাদের হাত থেকে বাঁচতে তাই বলে ছিলাম। বিষয়টি অনেক কষ্টদায়ক ছিল। ছাত্রের হাতে এভাবে মারধরের শিকার হতে হবে তা কল্পনাও করতে পারিনি। আমার দুর্ভাগ্য।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com
Design By Rana