রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৫:৫১ পূর্বাহ্ন

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন :
আপনার প্রতিষ্ঠানের বিশ্বব্যাপী প্রচারের জন্য বিজ্ঞাপন দিন
সংবাদ শিরোনাম :
সিটি মেয়ের সেরনিয়াবাত সাদেক আব্দুল্লাহ কে নবনির্বাচিত সাতলা ইউপি চেয়ারম্যানের ফুলেল শুভেচ্ছা কমতে শুরু করেছে শ্রীপুরের নদীভাঙন-পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী, জাহিদ ফারুক শামীম বরিশালে সকল ধরনের অশ্লীলতা বন্ধের দাবীতে তৌহিদী জনতার বিক্ষোভ ও সমাবেশ দেশে করোনায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১০৯৪ জন শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে বরিশালে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত দেশের সড়ক নেটওয়ার্কে বৈপ্লবিক পরিবর্তন হবে, ওবায়দুল কাদের পটুয়াখালীতে নুপুর নামে এক কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার মান্দা বাসীকে শারদীয় দুর্গা পূজার শুভেচ্ছা জানালেন সাবেক যুবলীগ সভাপতি এ্যাডঃ নাহিদ র্মোশেদ বাবু বরিশালে আজ থেকে অভ্যন্তরীণ নৌরুটে লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ও ব্যারিস্টার রফিক-উল হক আর নেই আজও সারাদেশে বৃষ্টির শঙ্কা, আগামীকাল থেকে উন্নতির পূর্বাভাস দিয়েছেন, আবহাওয়া অধিদপ্তর বরিশাল শেবাচিমে স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতে কঠোর পদক্ষেপ নেবেন সিটি মেয়র, সাদিক আবদুল্লাহ দেশে করোনায় প্রাণ গেলো আরও ১৪ জনের, নতুন শনাক্ত ১৫৮৬ জন বরিশালে আজ সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাতের রেকর্ড, আবহাওয়া অধিদপ্তর ১৫ টি পূজা মন্ডপে অনুদান দিলেন ঝালকাঠি পৌর মেয়র, লিয়াকত আলী তালুকদার ঢাকা সদরঘাটের ইজারা বাতিল, আরকোনো ফি দিতে হবে না যাত্রীদের প্রবল বৃষ্টিতে বরিশাল নগরীর প্রাণকেন্দ্র সহ নিম্ন অঞ্চল প্লাবিত বরিশালে ৪ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা জানালেন, আবহাওয়া অধিদপ্তর বঙ্গোপসাগরে ‘নিম্নচাপ’ ঢাকা-বরিশালসহ দেশের ১৫টি অঞ্চলে বৃষ্টির পূর্বাভাস, আবহাওয়া অধিদপ্তর বরিশালের অভ্যন্তরীণ রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ
ধর্ষণের ঘটনায় হত্যা বা আত্মহত্যা কি জায়েজ? ইসলাম কী বলে, জেনে নিন!

ধর্ষণের ঘটনায় হত্যা বা আত্মহত্যা কি জায়েজ? ইসলাম কী বলে, জেনে নিন!

ধর্ম ও জীবন : ধর্ষণ বা ব্যভিচার একটি মারাত্মক অপরাধ। ইসলামি শরিয়তে এর সুস্পষ্ট বিধান রয়েছে। ইসলামি বিধানের কার্যকারিতা না থাকাই ধর্ষণ-ব্যভিচার দিন দিন লাগামহীনভাবে বেড়েই চলছে। কিন্তু ধর্ষণ-ব্যভিচার থেকে নিজেকে রক্ষা করতে হত্যা-আত্মহত্যা সম্পর্কে ইসলাম কী বলে? জেনে নিন।

ইসলামি শরিয়তে ধর্ষণ-ব্যভিচারের এত সুন্দর সমাধান বা শাস্তির সুস্পষ্ট বিধান রয়েছে যে, যদি কেউ বিধান অনুযায়ী বিচার ফয়সালা করে তবে সামাজ জীবনে ধর্ষণ-ব্যভিচার থাকবে না বললেই চলে। কেননা অবিবাহিত নারী-পুরুষের ক্ষেত্রে এ অপরাধে নির্ধারিত সংখ্যায় বেত্রাঘাত করার বিধান রয়েছে। আবার বিবাহিত নারী-পুরুষের ক্ষেত্রে শাস্তি হলো পাথর মেরে হত্যা করা। প্রকাশ্যে উন্মুক্ত ময়দানে অপরাধীর ওপর এ শাস্তি কার্যকর হলে নিশ্চিত ধর্ষণ-ব্যভিচার থাকব শূন্যের কোটায়।

ধর্ষণ-ব্যভিচারে হত্যা:
ধর্ষণ-ব্যভিচারে দুইভাবে হত্যা কার্যক্রম সংঘটিত হয়। অনেক সময় ধর্ষিতা নিজেকে রক্ষা করতে গিয়ে ধর্ষণকারীকে হত্যা করে বসে। আবার অনেক ক্ষেত্রে ধর্ষণকারী বা ব্যভিচারী এ অপরাধ ঘটানোর পর ধর্ষিতাকে হত্যা করে। ইসলামে এ দুটি বিষয়েও রয়েছে সমাধান।

ধর্ষণ প্রতিরোধে হত্যা:

ধর্ষণ বা ব্যভিচারের ঘটনা থেকে আত্মরক্ষার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা ফরজ বা আবশ্যক। তারপরও যদি কোনো নারী জোরপূর্বক ধর্ষণ-ব্যভিচারে আক্রান্ত হয় তবে ওই নারী গোনাহগার হবে না। তবে জালিমরা আল্লাহর কাছে অপরাধী হিসেবে গণ্য হবে।

ধর্ষণ বা ব্যভিচার থেকে নিজেকে রক্ষা করতে গিয়ে যদি ধর্ষককে হত্যা করা হয় বা কোনোভাবে ধর্ষক হত্যার শিকার হয়; ইসলামি আদালতে এ হত্যায় ওই নারীর কোনো শাস্তি হবে না।

হজরত ইবনে আব্দুল বার রাহমাতুল্লাহি আলাইহি এ সম্পর্কে বলেন, ‘আমার জানামতে আগের-পরের কোনো আলেমের মধ্যে এ বিষয়ে দ্বিমত নেই যে, জোরপূর্বক ধর্ষণের শিকার নারীর ওপর কোনো হদ বা দণ্ড প্রয়োগ করা হবে না; যদি সঠিকভাবে প্রমাণিত হয় যে, সে অপহরণ ও ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

আর ধর্ষিতা আত্মরক্ষা করতে গিয়ে কিংবা অত্যাচারের শিকার হয়ে যদি মারা যায় তবে পরকালে ওই নারী শাহাদাতের মর্যাদা লাভ করবেন। কারণ রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হাদিসে পাকে তা সুস্পষ্টভাবে ঘোষণা দিয়েছেন।
– ‘যে ব্যক্তি তার ধন-সম্পদ রক্ষা করতে গিয়ে নিহত হয়, সে শহিদ।
– যে ব্যক্তি নিজেকে রক্ষা করতে গিয়ে নিহত হয়, সে শহিদ।
– যে তার দ্বীন রক্ষা করতে গিয়ে নিহত হয়, সে শহিদ।
– আর যে তার পরিবার রক্ষা করতে গিয়ে নিহত হয়, সে-ও শহিদ।’ (আবু দাউদ, তিরমিজি)

ধর্ষিতার আত্মহত্যা কি জায়েজ?

ধর্ষণ বা ব্যভিচারের শিকার হয়ে আত্মহত্যাকে ইসলাম সমর্থন করে না। বরং ইসলামের দৃষ্টিতে পরিস্থিতি যা-ই হোক না কেন; কোনো অবস্থাতেই আত্মহত্যা করা জায়েজ নয়। সুতরাং দুঃখ-কষ্ট, ব্যথা-বেদনা, অসুস্থতা-হতাশা, শত্রুর আক্রমণ এমনকি সম্ভ্রমহানি, সম্ভ্রমহানির পর লোকলজ্জা ও কঠিন পরিস্থিতির কারণে আত্মহত্যা করা যাবে না। কেননা ইসলামে আত্মহত্যা কবিরা গোনাহ ও জাহান্নামে যাওয়ার অন্যতম কারণ। আল্লাহ তাআলা বলেন-
وَلَا تَقۡتُلُوٓاْ أَنفُسَكُمۡۚ إِنَّ ٱللَّهَ كَانَ بِكُمۡ رَحِيمٗا – وَمَن يَفۡعَلۡ ذَٰلِكَ عُدۡوَٰنٗا وَظُلۡمٗا فَسَوۡفَ نُصۡلِيهِ نَارٗاۚ وَكَانَ ذَٰلِكَ عَلَى ٱللَّهِ يَسِيرًا

‘আর তোমরা নিজেদের হত্যা করো না। নিশ্চয়ই আল্লাহ তোমাদের প্রতি দয়ালু। আর কেউ জুলুম করে, অন্যায়ভাবে তা (আত্মহত্যা) করবে, অবশ্যই আমি তাকে অগ্নিদগ্ধ করবো, আল্লাহর পক্ষে তা সহজসাধ্য।’ (সুরা নিসা : আয়াত ২৯-৩০)

হজরত ছাবিত বিন জিহাক রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, নবী করিম রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি দুনিয়াতে কোনো বস্তু দিয়ে নিজেকে হত্যা করবে, কেয়ামতের দিন তাকে সে বস্তু দিয়েই শাস্তি প্রদান করা হবে।’ (বুখারি ও মুসলিম)

ধর্ষিতা হওয়ার আশংকায় আত্মহত্যা: যদি কোনো মুসলিম নারী এ ধারণা পোষণ করেন যে, শত্রুরা তার ইজ্জতের ওপর হামলা করবে; তবে কি ওই নারী নিজের সম্ভ্রম-ইজ্জত রক্ষা করার জন্য আত্মহত্যা করতে পারবেন? ইসলামে কি তা বৈধ?

এ সম্পর্কে সৌদি সর্বোচ্চ ওলামা পরিষদের স্থায়ী ফতোয়া হলো-
لا يجوز لها أن تقتل نفسها، ولو خافت أن يقع بها ما ذُكر قهرا، وهي معذورة إن حصل ما خافت دون رضاها
অর্থাৎ ‘তার জন্য আত্মহত্যা করা জায়েজ নয়; যদিও তার সঙ্গে জোরপূর্বক উল্লেখিত কিছু ঘটার আশঙ্কা করে। সে যা আশঙ্কা করছিলো তা যদি তার ইচ্ছার বাইরে সংঘটিত হয়; তাহলে সে নির্দোষ বলে গণ্য হবে।’

ইসলামি শরিয়তে নিষিদ্ধ ও দণ্ডযোগ্য অপরাধ ধর্ষণ ও ব্যভিচার। এ মহামারি থেকে উত্তরণে ইসলামি দণ্ড প্রয়োগের বিকল্প নেই। পরিস্থিতি যা-ই হোক না কেন, কোনো অবস্থাতেই ধর্ষণ থেকে বাঁচতে আত্মহত্যার পথ বেঁচে নেয়ার কোন সুযোগ নেই।

মহান আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর সব নারীকে ধর্ষণ ও ব্যভিচার থেকে হেফাজত করুন। জালিম অত্যাচারীদের প্রতিহত করার তাওফিক দান করুন। নারীদের নিজেদের আত্মরক্ষায় ইসলামের বিধান মেনে জীবন পরিচালনা করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





আমাদের ভিজিটর

  • 9,457 জন ভিজিট করেছেন
© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com
Design By Rana