মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৫:২৫ অপরাহ্ন

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন :
আপনার প্রতিষ্ঠানের বিশ্বব্যাপী প্রচারের জন্য বিজ্ঞাপন দিন
সংবাদ শিরোনাম :
বরগুনা ঘরে ঢুকে সহপাঠীকে ‘ধর্ষণচেষ্টা’ ও ভিডিও ধারণ, স্কুলছাত্র আটক দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ১৮ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৩৮০ জন পুলিশ ফাঁড়িতে ‘রায়হানকে হত্যা’ অবশেষে এস.আই আকবর গ্রেপ্তার বরিশালে সরকারি কলেজ শিক্ষকদের কর্মসূচি ও মানববন্ধন লন্ডনে নির্মিত হচ্ছে বলিউডের সুপারহিট জুটি শাহরুখ-কাজলের ভাস্কর্য যে টাকা বেতন পান তাতে সংসার চলে না, পদত্যাগ করতে চান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বরিশালে দুর্গাপূজা উপলক্ষে ফ্রি চিকিৎসা দেবে ‘পূজোর ভ্যান’ কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হলেন, সেরনিয়াবাত মঈন আব্দুল্লাহ বাকেরগঞ্জে সেই ৪ শিশুর বিরুদ্ধে ‘ধর্ষণ মামলা’ মেডিকেল রিপোর্টে মেলেনি ধর্ষণের কোন আলামত এস.আই. আকবরকে ধরিয়ে দিতে পারলেই ১০ লাখ টাকা পুরস্কার দেয়া হবে সিলেটি রবিউল ও রায়হান হত্যায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবীতে দাদু ভাই ছইল ফাউন্ডেশনের উদ্দোগে মানববন্ধন চলমান কর্মসূচী অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনের হাতিয়ার, পিরোজপুরে ড. সায়েম আমীর ফয়সাল বাস্থ্যবিধি মেনে পূজা উদযাপন করুন: ডিসি মোঃ খাইরুল আলম বরিশালে সড়ক অবরোধ করে বাম গণতান্ত্রিক জোটের বিক্ষোভ -মিছিল বরিশাল নৌবন্দরে জেলা প্রশাসক এস.এম. অজিয়র রহমানের সুরক্ষাসামগ্রী বিতরণ সাহসী হিরো আলমকে দেখতে ভিড়, সিনেমা হলে দর্শক নেই দেশে করোনায় আরও ২১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৬৩৭ জন শেখ হাসিনা ইয়্যুথ ভলান্টিয়ার অ্যাওয়ার্ডের লোগো উন্মোচন করেছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ভোটার বিহীন সরকার বাংলাদেশকে ধর্ষণের মহা উৎসবের দেশে পরিনত করেছেন, সাবেক সংসদ সদস্য শিরিন বিকেলে মাইকিং, সন্ধ্যায় মিলল শিশুর হাত-পা মোড়ানো লাশ পরিত্যক্ত টয়লেটে
করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে চিকিৎসকরা জিংক সমৃদ্ধ খাবার বা জিংক ক্যাপসুল খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন

করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে চিকিৎসকরা জিংক সমৃদ্ধ খাবার বা জিংক ক্যাপসুল খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন

জিংক খুব গুরুত্বপূর্ণ এক পুষ্টি উপাদান। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে চিকিৎসকরা তাই এখন জিংক সমৃদ্ধ খাবার বা জিংক ক্যাপসুল খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। তবে খাবারের মাধ্যমে গ্রহণ করা জিংক বা অন্য পুষ্টি উপাদান দ্রুত শরীরে কাজ করে, তেমনটা বলে আসছেন পুষ্টিবিদরা। আমাদের শরীরে যে ৩০০টির বেশি এনজাইম আছে, তাদের ওপর জিংক ভালোভাবে কাজ করে।

দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো, দেহকোষ বৃদ্ধি ও বিভাজন, প্রোটিন ও ডিএনএ উৎপাদনে ভূমিকা রাখে জিংক। শরীরের জন্য এই পুষ্টি উপাদান খুব জরুরি হলেও বিশ্বের অসংখ্য মানুষ এখনো জিংক ঘাটতি জনিত সমস্যায় আছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, বিশ্বের তিন ভাগের এক ভাগ মানুষ পর্যাপ্ত জিংক গ্রহণ করে না।

আমেরিকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথের তথ্যমতে, ১৪ বছরের উপরে সব পুরুষকে প্রতিদিন অন্তত ১১ মিলিগ্রাম জিংক অবশ্যই গ্রহণ করতে হবে। আর ১৪ বছরের বেশি নারীকে অন্তত ৮ মিলিগ্রাম জিংক গ্রহণ করা জরুরি। তবে সন্তান জন্ম দেয়া ও সন্তানকে দুধ পান করানো নারীদের প্রতিদিন ১২ মিলিগ্রাম জিংক গ্রহণ করতে হবে। আর ডাক্তাররা প্রতিদিন ১১ মিলিগ্রাম জিংক ক্যাপসুল সেবনের পরামর্শ দেন।

মরণব্যাধি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে কোন কোন খাবার খেলে জিংক বেশি পাবেন,

জেনে নিন এবার।

রেডমিট: রেড মিট অর্থাৎ গরু ও খাসির মাংসে পরিমাণ মতো জিংক থাকে। গরুর মাংসে ভিটামিন বি টুয়েলভও থাকে প্রচুর। ১০০ গ্রাম গরুর মাংসে ৩.২৪ মিলিগ্রাম এবং একই পরিমাণ খাসির মাংসে ৪.৮ মিলিগ্রাম জিংক থাকে। কিন্তু রেডমিটে যেহেতু কোলেস্টেরল বেশি থাকে, সে কারণে তা বেশি খেলে হৃদরোগের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

ঝিনুক: ঝিনুকে কম ক্যালরি ও বেশি জিংক থাকে। কাঁকড়া, চিংড়ি এসবে জিংক থাকলেও যেকোনো খাবারের তুলনায় ঝিনুকে জিংক থাকে বেশি। ৫০ গ্রাম ঝিনুকে ৮.৫ মিলিগ্রাম জিংক থাকে।

মুরগির মাংস: প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে মুরগির মাংসে, যা মাংসপেশী গঠন ও বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। তবে মুরগির মাংসে জিংকও আছে। নিয়মিত মুরগির মাংস খেলে হাড়, হৃদপিন্ড উন্নত হয় ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। ৮৫ গ্রাম মুরগির মাংসে ২.৪ মিলিগ্রাম জিংক থাকে।

সবজি: উদ্ভিদ জাতীয় কিছু খাবার আছে, যেগুলোতে জিংক থাকে পরিমাণ মতো। ডাল, ছোলা ও শিমে জিংক থাকে। এসব খাবারে কম ক্যালরি, কম ফ্যাট থাকে এবং প্রোটিন ও আঁশ থাকে। ১০০ গ্রাম ডালে ৪.৭৮ মিলিগ্রামের মতো জিংক থাকতে পারে। ১৮০ গ্রাম শিমে ৫ মিলিগ্রাম ও ১৮৪ গ্রাম ছোলায় ২.৫ মিলিগ্রাম জিংক থাকে।

কাজু বাদাম: কাজু বাদামে প্রচুর পরিমাণে জিংক, কপার, ভিটামিন এ, ভিটামিন কে এবং ফোলেট থাকে। ২৮ গ্রাম কাজু বাদামে ১.৬ মিলিগ্রাম জিংক থাকে।

ওট: সকালের নাস্তায় অনেকেই ওটমিল খেতে পছন্দ করেন। এতে প্রচুর আঁশ, বেটা গ্লুকেন, ভিটামিন বি সিক্স ও ফোলেট থাকে। এক বাটি ওটে ১.৩ মিলিগ্রাম জিংক থাকে।

মাশরুম: ভিটামিন এ, সি, ই ও আয়রন সমৃদ্ধ মাশরুমের ২১০ গ্রামে জিংক পাওয়া যায় ১.২ মিলিগ্রাম।

মিষ্টি কুমড়ার বিচি: দারুণ পুষ্টিগুণে ভরা মিষ্টি কুমড়ার বিচিতে আয়রন, ম্যাগনেশিয়াম ও কপার থাকে।

দুগ্ধজাত খাবার: দুধ ও দই এর মতো দুগ্ধজাত খাবারে ক্যালসিয়ামের পাশাপাশি জিংকও থাকে। ২৫০ মিলিলিটার লো ফ্যাট দুধে ১.০২ মিলিগ্রাম জিংক থাকে। আর ২৫০ মিলিলিটার দইয়ে থাকে ২.৩৮ মিলিগ্রাম জিংক।

ডার্ক চকলেট: ডার্ক চকলেট যতো ডার্ক হবে, তাতে জিংকের পরিমাণ ততো বেশি থাকবে। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও সক্ষম ডার্ক চকলেট।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





আমাদের ভিজিটর

  • 7,802 জন ভিজিট করেছেন
© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com
Design By Rana