শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১০:২২ অপরাহ্ন

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন :
আপনার প্রতিষ্ঠানের বিশ্বব্যাপী প্রচারের জন্য বিজ্ঞাপন দিন
সংবাদ শিরোনাম :
বানারীপাড়ায় ভিজিডি কার্ডে দূর্নীতি ও অনিয়ম করায় চেয়ারম্যান মাইনুল হাসানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে ‘হত্যা’ স্বামী পলাতক সারাদেশে ‘দুর্বল নেটওয়ার্ক ও ইন্টারনেটে ধীরগতি’ ব্যবস্থা নিতে লিগ্যাল নোটিশ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি , ৪১ জনকে চাকরি দেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয় আগামীকাল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেলসেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনায় আজও ৩৬ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৯০৮ জন ভিজিডি ও রেশন কার্ড দেয়ার লোভ দেখিয়ে জেলের স্ত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা নৈতিক ও মানবিক গুণাবলীর উৎকর্ষ সাধনে একাত্ম হতে হবে, পীরজাদা মোস্তফা আমীর ফয়সল মুজাদ্দেদী ঢাকা সিটি করপোরেশনের প্রথম মেয়র হানিফের আজ ১৪তম মৃত্যুবার্ষিকী বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ৬ কোটি ১৯ লাখের ও বেশি মানুষ এবার করোনায় বিপর্যস্ত জার্মানি, আক্রান্তের সংখ্যা ১০ লাখ ২৭ হাজার ছাড়ালো প্রেমিকার সাথে ‘ব্রেকআপ হাওয়ায়’ বন্ধুকে হত্যা করে নদীতে লাশ ভাসিয়ে দিলেন বন্ধু বিদেশি কর্মীদের জন্য কোভিড-১৯ টেস্ট বাধ্যতামূলক করল মালয়েশিয়া বরিশালের ফায়জুল হক খান ৫৬ হাজার ৩০০ পিস ইয়াবাসহ আটক শ্বশুরকে গলা কেটে হত্যা করল জামাতা আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদের নামে সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘গুজব’ ছড়ানো হচ্ছে, পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স মায়ের ওপর অভিমান করে ৮ম শ্রেণীর স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা মেসির নামে ‘বার্সার স্টেডিয়াম’ ঘোষণা দিয়েছেন, এমিলি রউসাদ ‘আ.লীগ-বিএনপির লড়াই নাই, দেশের মানুষ ভাই ভাই’ হেফাজতের আমির, জুনায়েদ বাবুনগরী বরিশালে সভা-সমাবেশ করার আগে প্রশাসনের অনুমতি নেওয়ার পরামর্শ
যেসব ক্ষেত্রে একমাত্র আল্লাহ তায়ালাকে ছাড়া অন্য কাউকে ভয় করা হারাম

যেসব ক্ষেত্রে একমাত্র আল্লাহ তায়ালাকে ছাড়া অন্য কাউকে ভয় করা হারাম

মহান আল্লাহ তাআলাকে ভয় করা অনেক বড় গুণ। কুরআনুল কারিমের অনেক আয়াতে তাঁকে ভয় করার নির্দেশ দিয়েছেন স্বয়ং আল্লাহ তাআলা নিজে। কিন্তু আল্লাহকে ছাড়া আর অন্য কাউকে কি ভয় করা যাবে? এ সম্পর্কে ইসলামের নির্দেশনাই বা কী?

কাকে ভয় করতে হবে এ মর্মে নির্দেশ দিয়ে কুরআনুল কারিমে মুমিন বান্দাকে উদ্দেশ্য আল্লাহ তাআলা ঘোষণা করেন-
‘তোমরা একমাত্র আমাকেই ভয় কর যদি মুমিন হও।’ (সুরা মায়েদা : আয়াত ১১২)

‘না’, আল্লাহ তাআলাকে ছাড়া কোনো মুমিন কাউকে ভয় করতে পারে না। ভয় করা সম্পর্কে ইসলামে ৩টি বিধান রয়েছে। এরমধ্যে প্রথমটি শিরক, দ্বিতীয়টি হারাম এবং তৃতীয় ক্ষেত্রে ভয় করা জায়েয বা বৈধ।

-প্রথমত : যে ভয় ‘শিরক’
আল্লাহ ছাড়া কোনো মানুষকে কল্যাণ-অকল্যাণের ব্যাপারে গোপনে ভয় করা। অর্থাৎ এরূপ ধারণা করা যে, দুনিয়া ও পরকালে ওলি-আওলিয়া, ফেরেশতা, জ্বিন, বিশাল বৃক্ষ কিংবা ক্ষমতাধর কেউ গোপনে তার ক্ষতি করার নিশ্চিত ক্ষমতা রাখে এমন বিশ্বাস পোষণ করা। চাই সে ব্যক্তি কিংবা প্রাণি জীবিত হোক বা মৃত।

আখেরাতে ব্যাপারে শিরকি ভয় হলো এমন নিশ্চিত ক্ষমতার অধিকারী বলে বিশ্বাস করা যে, সেসব ওলি-আওলিয়া, ফেরেশতা, জ্বিন কিংবা বিশাল প্রাণি বা জীব পরকালে তাদের উপকারে আসবে, সুপারিশ করবে, অন্যায়ের আজাব দূর করবে; তাই তাদেরকে আল্লাহর পাশাপাশি কল্যাণ লাভে ভয় করা।

যদি কেউ তাদের সমালোচনা কিংবা তাদের কোনো অন্যায় কথা অবমাননা করে তবে দুনিয়া ও পরকালে তাদের নিশ্চিত ক্ষতি হবে, এমন বিশ্বাস পোষণ করা।

মক্কার কাফির মুশরিকরা যেমনটি মনে করতো যে, তাদের দেব-দেবির সঙ্গে বেআদবি করলে কিংবা সমালোচনা করলে সে দেব-দেবি তাদের দুনিয়া ও পরকালে নিশ্চিত ক্ষতির কারণ হবে।

মানুষের এমন সব শিরকি ভয়ের ব্যাপারে আল্লাহ তাআলা ঘোষণা করেন-

‘আল্লাহ কি তার বান্দার জন্য যথেষ্ট নয়? অথচ তারা (মুশরিকরা) আল্লাহ ব্যতিত তাদের যে সব দেবতা রয়েছে, তারা আপনাকে সে সব উপাস্যের অনিষ্টের ভয় দেখায়।’ (সুরা যুমার : আয়াত ৩৬)

-দ্বিতীয়ত :‘যে ভয় হারাম বা নিষিদ্ধ’’

ভয়ে আল্লাহর বিধান পালন থেকে বিরত থাকা হারাম বা নিষিদ্ধ। আল্লাহ তাআলা এ বিধান যেমন ‘নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত ইত্যাদি ফরজ নির্দেশ পালন করলে নিজের ক্ষতি হবে কারো প্রতি এমন ভয় পোষণ করা হারাম। এ ব্যাপারে হাদিসে কুদসিতে এসেছে-
‘কেয়ামতের দিন মহান আল্লাহ বান্দাকে বলবেন, অন্যায় কাজ দেখার পর কোন জিনিস তোমাকে তা পরিবর্তন করতে বাধা দিয়েছে?

সুতরাং কোনো মানুষের ভয়ে আল্লাহর বিধান পালন বিরত থাকা হারাম।

-তৃতীয়তা : ‘যে ভয় বৈধ’
স্বাভাবিক স্বভাবগত ভয় করা জায়েয বা বৈধ। যে ভয়তে আল্লাহর সম্মান কিংবা ক্ষমতা ও নির্দেশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয় না। আর তাহলো শত্রুকে ভয় করা, হিংস্র প্রাণি থেকে ভয় করা, আগুণ থেকে ভয় করা, পানিতে ডুবে মরার ভয় করা ইত্যাদি।
মনে রাখতে হবে এ জাতীয় ভয় দোষের নয়। বরং এ সব ব্যাপারে ভয়ের সঙ্গে সঙ্গে সতর্কতা অবলম্বন করা জরুরি। বরং নিজেদের নিরাপত্তার ব্যাপারে মানুষকে সতর্ক থাকতে কুরআন-হাদিসে নসিহত প্রদান করা হয়েছে।

আল্লাহ তাআলা কুরআনুল কারিমের অনেক আয়াতে তাকে ভয় করার নির্দেশ দিয়েছেন। আর যারা তাকে ভয় করে চলে, তাদের জন্য অসংখ্যা কল্যাণের ঘোষণা দিয়েছেন।

সুতরাং শুধুমাত্র আল্লাহ তাআলাকে ভয় করতে হবে। স্বভাবগত বিষয় ব্যতিত আল্লাহ ছাড়া অন্য কাউকে ভয় করা যাবে না।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে কুরআন ও হাদিসের নির্দেশনা অনুসারে তাকে ভয় করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





আমাদের ভিজিটর

  • 20,763 জন ভিজিট করেছেন
© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com
Design By amader sheba