শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:০৩ পূর্বাহ্ন

নরেন্দ্র মোদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা

নরেন্দ্র মোদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফর নিয়ে শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করেছেন দেশটির পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা। সোমবার বিকেলে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে আসেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব। তারা নরেন্দ্র মোদির আসন্ন ঢাকা সফর নিয়ে কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সময় বাংলাদেশ সফরের আগে নরেন্দ্র মোদিকে তার শুভেচ্ছা পৌঁছে দিতে বলেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে জানান, বৈঠকে নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

সচিব বলেন, ‘দ্বিপাক্ষিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় এবং উপ-আঞ্চলিক সংযোগ (কানেকটিভিটি) সম্পর্কিত বিষয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতার জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপনের প্রস্তুতি সম্পর্কে ভারতের পররাষ্ট্র সচিবকে জানান।

বিভিন্ন দেশে ভয়াবহ আকার ধারণ করা করোনাভাইরাস প্রতিরোধের সতর্কতা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ইতিমধ্যেই করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য একটি হাসপাতালের ব্যবস্থা রেখেছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘যদি কেউ করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয় তখন তাকে চিকিৎসার জন্য ওই হাসপাতালে স্থানান্তর করা হবে।’

ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বাংলাদেশের আর্থ সামাজিক সূচকগুলোর উন্নয়ন বিশেষ করে শিশু মৃত্যু হার হ্রাস থেকে নারী শিক্ষা এবং প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা থেকে শুরু করে সাক্ষরতায় চমকপ্রদ সাফল্যের ভূয়শী প্রশংসা করেন। তিনি বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পের উন্নয়নেরও প্রশংসা করেন।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, ভারতে বাংলাদেশের হাইকমিশনার মুহম্মদ ইমরান এবং বাংলাদেশে ভারতের হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাস এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আগামী ১৭ মার্চ ঢাকায় সফরে আসছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার সফরের বিষয় চূড়ান্ত করতে সোমবার ঢাকায় সফরে আসেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, যিনি এর আগে ঢাকায় ভারতের হাইকমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

এদিকে সম্প্রতি ভারতের রাজধানী দিল্লিতে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল সিএএ নিয়ে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় প্রায় ৪২ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। সেখানে মুসলিমদের হত্যা ও নির্যাতন চালানো হচ্ছে এমন অভিযোগ এনে নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণ বাতিলের দাবি উঠে বাংলাদেশে। কয়েকটি ধর্মভিত্তিক দল মোদির সফর ঠেকানোর ঘোষণাও দিয়েছে। তবে সরকার বলছে, বন্ধুরাষ্ট্র ভারতকে মুজিব বর্ষের আয়োজন থেকে বাদ দেয়ার কোনো সুযোগ নেই। মোদিকে অনেক আগেই নিমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। দিল্লির সাম্প্রতিক ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে তার নিমন্ত্রণ বাতিলের কোনো সুযোগ নেই।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




আমাদের ভিজিটর

  • 207,638 জন ভিজিট করেছেন
© All rights reserved © 2019 ajkercrimetimes.com

Design and Developed By Sarjan Faraby