ঢাকাসোমবার , ১০ জুন ২০২৪

এমপি আনার হত্যা: কলকাতায় সেপটিক ট্যাংকে পাওয়া মাংস মানুষের

ক্রাইম টাইমস রিপোর্ট
জুন ১০, ২০২৪ ৬:৫৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সংবাদটি শেয়ার করুন....

নিউজ ডেস্ক :: এমপি আনার হত্যা: কলকাতায় সেপটিক ট্যাংকে পাওয়া মাংস মানুষের

কলকাতায় খুন হওয়া ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার হত্যায় তল্লাশি চালিয়ে নিউ টাউন এলাকার সঞ্জীবা গার্ডেনের সেপটিক ট্যাংক থেকে উদ্ধার হয়া পচে যাওয়া মাংসের টুকরো মানুষের। প্রাথমিকভাবে ফরেনসিক পরীক্ষার পর বিশেষজ্ঞরা এ তথ্য জানিয়েছেন। সোমবার (১০ জুন) সিআইডির সূত্রে এমন তথ্য জানা গেছে।

সিআইডি জানিয়েছে, বাগজোলা খাল থেকে উদ্ধার হওয়া হাড়গোড়ও ফরেনসিকে পাঠানো হয়েছে। উদ্ধার হওয়া মাংস ও হাড় সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিমের কি না, তা জানতে ডিএনএ পরীক্ষা করা হবে। আর সে কারণেই এমপি আজীমের পরিবারের সদস্যদের কলকাতায় নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

এদিকে গ্রেপ্তারকৃত আসামি সিয়াম জানিয়েছেন, তিনি পলাতক আখতারুজ্জামান শাহিনের অধীনে ৬০ হাজার টাকা বেতনে কাজ করতেন। শাহিনের নির্দেশেই তিনি জিহাদকে কলকাতায় এনে রাজারহাটে ভাড়ার ফ্ল্যাটে রেখেছিলেন। খুনের জন্য ব্যবহৃত অস্ত্র, প্লাস্টিক টলি ও ব্যাগ- সবকিছুই কেনা হয়েছিল নিউমার্কেট এলাকা থেকে। অন্য দুই অভিযুক্ত ফয়সাল ও মুস্তাফিজ মাংস কিমা করার মেশিন কিনে এনেছিলেন। আজীমকে খুন করার পর তার মাংস ও হাড় আলাদা করা হয়, তারপর ছোট ছোট টুকরো এবং কিমা করা হয় ওই মেশিনে। ওই মেশিন এখন কোথায় তা জানেন ফয়সাল।

গতকাল রোববার (৯ জুন) খাল থেকে উদ্ধার হয়েছে বড় ও মাঝারি সাইজের সাতটি এবং বুক ও পাঁজর-সহ ১২টি হাড়। হাড়গুলি মূলত হাতের এবং কোমর থেকে পায়ের হাঁটুর।

মাংসের টুকরো ও হার উদ্ধার হলেও এখনো খোঁজ নেই আনারের মাথার খুলি ও খুনে ব্যবহার করা অস্ত্রের। সিয়াম জানিয়েছেন, তারা একটি গাড়ি ভাড়া করে এসে টলি ব্যাগ থেকে হাড় ও মাথার অংশ ব্যাগে তুলে খালের মধ্যে ছুঁড়ে ফেলে দেয়।