ঢাকামঙ্গলবার , ৭ মে ২০২৪

বরিশাল সদর উপজেলার দশ ইউনিয়নে এসএম জাকির হোসেনের গণজোয়ার

ক্রাইম টাইমস রিপোর্ট
মে ৭, ২০২৪ ৯:১৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সংবাদটি শেয়ার করুন....

নিজস্ব প্রতিবেদক  :: বরিশাল সদর উপজেলার দশ ইউনিয়নে এসএম জাকির হোসেনের গণজোয়ার।

বরিশাল সদর উপজেল নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। এ নির্বাচনে মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন এসএম জাকির হোসেন। উপজেলার দশটি ইউনিয়নে ইতিমধ্যে গণসংযোগ সম্পন্ন করছেন তিনি। ইউনিয়নগুলোর প্রত্যন্ত অঞ্চলে সকাল থেকে ছুটে বেড়িয়েছেন তিনি, সদর উপজেলার উন্নয়নের স্বার্থে দিয়েছেন নানা প্রতিশ্রুতি। তবে সাধারন ভোটারদের মনে প্রশ্ন জাগতেই পারে কেন তারা এস এম জাকির হোসেনকে মোটরসাইকেল মার্কায় ভোট দিবেন?

এসএম জাকির হোসেন ২০১৩ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত বরিশাল সিটি করপোরেশনের ২০নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ওই ওয়ার্ডের সর্ব্বোচ্চ উন্নয়ন কর্মযজ্ঞ হয়েছিলো তার হাত ধরেই। তিনি বরিশালের পেশাদার সাংবাদিকদের শীর্ষ সংগঠন বরিশাল প্রেসক্লাবের টানা পাঁচ মেয়াদে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দক্ষতার সাথে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এছাড়া তিনি ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বরিশাল চেম্বার অব কমার্স এর পরিচালক, বরিশাল ক্লাবের পরিচালক সহ একাধিক স্কুল, এতিমখানা ও বৃদ্ধাশ্রমে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন।

২০২০ সালে বৈশ্বিক মহামারি করোনায় গোটা দেশ যখন লকডাউনে তখন খাদ্য সংকটে বেচে থাকা কষ্টস্বাধ্য হয়ে উঠেছিলো বরিশালের ভাসমান ও ছিন্নমূল মানুষদের। সেসময় মানবিক সহায়তা নিয়ে তাদের পাশে দাঁড়ান বরিশাল প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন। প্রতিদিন বরিশাল নদী বন্দরসহ গোটা মহানগরী এলাকায় তার নেতৃত্বে তিন শতাধিক মানুষের মাঝে রান্না করা খাবার পৌঁছে দেন তিনি। এমন কার্যক্রমের কারনে দেশজুড়ে একজন মানবিক ব্যাক্তি হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন এসএম জাকির হোসেনের। শুধু করোনা কালীন সময় নয় এস এম জাকির হোসেনের সেই মানবিক কার্যক্রম এখনও চলমান রয়েছে অসহায় ছিন্নমূল মানুষদের জন্য।

মহানগরীর বিভিন্ন গুরুপ্তপূর্ন পদে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি বরিশাল সদর উপজেলার উন্নয়নবঞ্চিত মানুষদের সেবায় কাজ করার অঙ্গীকার নিয়ে আসন্ন বরিশাল সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন মানবিক নেতা এস এম জাকির হোসেন। তার মূল লক্ষ্য সদর উপজেলার অস্বচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষার ব্যবস্থা করা, কর্মসংস্থানের মাধ্যমে বেকারত্ব দূর কার ও অসহায়-দরিদ্র মানুষদের সু-চিকিৎসা নিশ্চিত করা।

এছাড়াও বরিশাল সদর উপজেলাকে একটি আধুনিক ও স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলতে চান এস এম জাকির হোসেন। এজন্য বরিশাল সদর উপজেলা বাসীকে পাশে চান তিনি। আগামী ৮ মে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মোটরসাইকেল প্রতীকে ভোট দিয়ে এস এম জাকির হোসেনকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করার মাধ্যমে উপজেলা বাসীর সেবক হিসেবে কাজ করার সুযোগ দিন।

চাঁদপুরা ইউনিয়নের সাহেবের হাট এলাকার বাসিন্দা রিপন হাওলাদার বলেন, দীর্ঘদিন এই ইউনিয়ন উন্নয়ন বঞ্চিত। ভাঙা-চোরা রাস্তা-ঘাট, বিভিন্ন ওয়ার্ডের রাস্তাগুলো চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। এসব রাস্তায় দূর্ঘটনা নিত্যদিনের ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিশেষ করে ধোপা বাড়ির মোড় থেকে সাহেবের হাট গাবতলা পর্যন্ত, শিপু স্ট্যান্ড থেকে নুরালী স্টোর, কালামিয়ার বাড়ি থেকে বিকে স্কুল পর্যন্ত রাস্তায় চলাচলের অনুপযুক্ত। চাঁদপুরা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যানকে বিভিন্ন সময়ে জানানোর পরও কোনো উন্নয়ন কাজ হয়নি। এস এম জাকির চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়াতে এলাকাবাসী অত্যন্ত খুশি। আমরা আশা করি তিনি নির্বাচিত হলে এসব সমস্যার সমাধান হবে।

এস এম জাকির হোসেন বলেন, জনগণ যদি আমাকে ভোটে নির্বাচিত করে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আমি সদর উপজেলার উন্নয়নে কাজ করতে চাই। বরিশাল সদর উপজেলার জনগণ আমার ওপর আস্থা রেখেছে বলেই আমি চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হয়েছি। যদি নির্বাচিত হই তাদের সেই আস্থার প্রতিদান কাজের মাধ্যমে দিতে চাই।
তিনি আরও বলেন, আমি নিজে কোন দূর্নীতি করিনি আর দূর্নীতি প্রশ্রয়ও দেই না, আপনারা আমাকে নির্বাচিত করছে সদর উপজেলার দূর্নীতির ঘরকে তালাবদ্ধ করবো ইনশাআল্লাহ।

ভোটারদের উদ্দেশ্যে এসএম জাকির বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ সুষ্ঠ ভোট হবে। নির্বাচন কমিশনারও সেটি আমাদের আশ্বস্ত করেছেন। তাই আপনারা ভোটকেন্দ্রে গিয়ে আপনাদের মূল্যবান ভোট দিবেন। তবে ভোটটি দেয়ার আগে চিন্তা করবেন যে আগামী ৫ বছর কে আপনাদের পাশে থেকে বরিশাল সদর উপজেলার উন্নয়নে কাজ করবে।

-বার্তা প্রেরক ঃ এসএম জাকির হোসেন মিডিয়া সেল।